রবিবার ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   রবিবার ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

জিততে হলে ওবায়দুল কাদেরকে সতর্ক হতে হবে
প্রকাশ: ১০ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:৪৮ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

জিততে হলে ওবায়দুল কাদেরকে সতর্ক হতে হবে

সময় ‍নিউজ বিডিঃ  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের প্রসঙ্গে তার ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, ‘আমি একটি জায়গায় দুর্বল। ওবায়দুল কাদের সাহেব অসুস্থ। তিনি মারা যাবেন, এটা বললে আমি দুর্বল হয়ে যাই। তারও বুঝতে হবে, তিনি জাতীয় নেতা। আওয়ামী লীগের দুবারের সাধারণ সম্পাদক। আমি নোয়াখালীর, ফেনীর অপরাজনীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করব, দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করব, গ্যাসের অধিকারের জন্য প্রতিবাদ করব। প্রতিবাদ করলে তখন বলে, আমি নাকি পাগল।’

তবে তিনি বলেন, ‘তার (ওবায়দুল কাদের) ওপরও আমার ক্ষোভ আছে। এখানে জিততে হলে তার আমাদের লাগবে। সামনে জিততে হলে ওনাকেও সতর্ক হতে হবে। এত সহজ নয়, কঠিন ব্যাপার। বউটউ সামলাতে হবে। আর ওনার সঙ্গে যারা হাঁটেন, তারা কার থেকে মাসোহারা পান, তার খোঁজখবর নিতে হবে।’

আজ রবিবার সকালে কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনী পথসভায় এসব কথা বলেন আবদুল কাদের মির্জা।

বক্তব্যের শুরুতেই তিনি বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের আমার সঙ্গে নেই। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ আমার সঙ্গে নেই। নোয়াখালী ও ফেনীর আওয়ামী লীগ আমার বিরুদ্ধে অস্ত্রশস্ত্র পাঠিয়েছে। ডিসি, এসপি, নির্বাচন অফিসার আমার সঙ্গে নেই। আপনারা কেউ আমার সঙ্গে থাকবেন? থাকলে আমি কথা বলব।’

যুব মহিলা লীগের পরিচয়ে তাকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করা হয়েছে, এমন অভিযোগ করে বসুরহাট পৌরসভায় আওয়ামী লীগের এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘মুঠোফোনে আমাকে যুব মহিলা লীগের পরিচয় দিয়ে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেছে। প্রশাসনকে জানিয়েছি, তারা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। তাহলে এই মহিলার হাত অনেক শক্তিশালী, না হয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি কেন?’

এর আগের দিন শনিবার বসুরহাট পৌরসভার উপজেলা পরিষদের সামনে নির্বাচনী পথসভায় তিনি বলেছিলেন,

আগামী ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় নোয়াখালীর কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা। গত ৩১ ডিসেম্বর থেকে হঠাৎ বিভিন্ন সভায় তার বক্তব্য নিয়ে দেশের রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। এসব বক্তব্যে সুষ্ঠু নির্বাচন ও জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি যথাযথভাবে করার দাবি জানান তিনি। দলের বিভিন্ন পর্যায়ের দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধেও সরব হন। এসব দাবিতে ৩ জানুয়ারি সমর্থকদের নিয়ে বসুরহাটের জিরো পয়েন্ট এলাকা অবরোধ করেন কাদের মির্জা। টায়ার জ্বালিয়ে হাতে ঝাড়ু নিয়ে বিক্ষোভ দেখান তার সমর্থকেরা। সেই সময় কাদের মির্জা দাবি করে জানান, অসুস্থতা থেকে সুস্থ হয়ে তিনি সবসময় সত্য বলার পণ করেছেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রধান উপদেষ্টাঃ শাহজাদা পারভেজ টিনু।
আইন উপদেষ্টাঃ এ্যাড আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ
(জজকোর্ড ঢাকা)
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ মো:মোস্তাফিজুর রহমান।
যুগ্ন সম্পাদকঃ আমিনুর রহমান রুবেল ও এস এম আমিনুল ইসলাম।
সাহিত্য সম্পাদকঃ খলিলুর রহমান তাং ও ইউসুফ আলী তাং।
বার্তা সম্পাদকঃ মনিরুজ্জামান তাং

অফিসঃ
ঢাকাঃ সুলতান টাওয়ার (৩য় তলা) টংঙ্গী বাজার, গাজিপুর, ঢাকা।
বরিশালঃ ১০ নং ওয়ার্ড, বাঁধ রোড,ষ্টীমার ঘাট মার্কেট (৩য় তলা)
কলাপাড়াঃ মমতা মার্কেট,বাদুড় তলী সূইজগেট,কলাপাড়া,পটুয়াখালী।
E-mail: somoynewskp@gmail.com
মোবাইলঃ 01721987722

Design & Developed by
  জনজীবন বিপর্যস্ত তীব্র শীতে ও কুয়াশা!   ফেরি চলাচল বন্ধ পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া রুটে ।   নিয়ন্ত্রণে ১০ ইউনি একটি ভবনে আগুন; রাজধানী   প্রথমবার স্বামীসহ প্রকাশ্যে আনুশকা মেয়ে হওয়ার পরে।   কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা, প্রেমিকার বিরুদ্ধে মামলা করতে এসে প্রেমিক আটক!   ঢাকা হাইকোর্টের সামনে ছুরিকাঘাতে একব্যক্তি নিহত!!   শরণখোলায় ১৯টি চিত্রল হরিণের চামড়া উদ্ধার।   শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ   কিশোরগঞ্জ পাগলা মসজিদের দানবক্সে ৫ মাসে ২ কোটি৩৮লাখ ৫৫হাজার টাকা।   মাদরাসা শিক্ষার মান বাড়ছে : শিক্ষা উপমন্ত্রী   লক্ষ্মীপুরের মান্দারীতে সড়কে ঝরে গেল সুমন নামের এক সিএনজি  চালকের প্রাণ   প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ত্রিশাল উপজেলার ভূমিহীন ও গৃহহীন ৫০ পরিবারকে ঘর দেওয়া হয়েছে।   মোংলা উপ‌জেলার ৫০ টি ছিন্নমূল পরিবারের মাঝে জ‌মি ও গৃহ প্রদান সনদ হস্তান্তর।   পিরোজপুরে ৩৭৫ জন গৃহহীন পরিবার পেল জমি ও ঘর   শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা।   লক্ষ্মীপুরের ০৩ অফিসার ইনচার্জ(ওসি)র রদবদল   লালমোহনে ইউপি চেয়ারম্যানের বিচার চেয়ে নির্যাতিত বাবার দুই মেয়ের সংবাদ সম্মেলন।   স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুনরায় চালুকরণের আদেশ   পরমাণু চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে চান বাইডেন।   ভারতীয় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা বারিন্দ মেডিকেলে!