বুধবার ৩রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৮ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   বুধবার ৩রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ব্রেকিং নিউজঃ
বাবার কাছে যেতে চাওয়ায় মায়ের হাতে মেয়ে খুন!! ঈশ্বরগঞ্জে জমি লিখে না দেওয়ায় বৃদ্ধ পিতা-মাতার উপর সন্তানদের অমানবিক নির্যাতন। লক্ষ্মীপুরে উদযাপন হলো দৈনিক সময়ের আলো’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী  দ্বিতীয় দিনেও রাজশাহীতে চলছে না যান, ভোগান্তিতে মানুষ। বাংলাদেশ পুলিশের পুলিশ মেমোরিয়াল ডে-২০২১ উদযাপন লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগে মাদ্রাসা অধ্যক্ষ সহ গ্রেফতার-২ 'পছন্দের পাঁচটি বিকাশ' নাম্বারে সেন্ড মানিতে’ খরচ নেই। রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ আজ মঙ্গলবার। বরিশালের সর্বজন শ্রদ্ধেয় শিক্ষাবিদ সরকারি ব্রজমোহন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. হানিফ আর নেই। পান-সুপারি আনতে গিয়ে প্রাণ গেল বৃদ্ধার
ভোগ করছে তার দেশত্যাগী সন্তানরা খুনি মোশতাকের পাপের!
প্রকাশ: ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

ভোগ করছে তার দেশত্যাগী সন্তানরা খুনি মোশতাকের পাপের!

সময় নিউজ বিডিঃ  সূর্যের ধরণীতলে বঙ্গবন্ধু হত্যার অবিশ্বাস্য ঘটনার পর প্রথম যে ব্যক্তিটির মুখোশের অন্তরাল থেকে জনসম্মুখে হাজির হয়েছিল তিনি খন্দকার মোশতাক আহমেদ। হিমালয়সম মহীরূহকে হত্যার পর রাষ্ট্রপতির সিংহাসনে সমাসীন হন এই বিশ্বাসঘাতক। রাজনৈতিক জীবনের শুরু এবং শেষ দু’টোই ঘটনাবহুল। মোশতাক কতটা চাটুকারিতার আশ্রয় নিয়েছেন তা কয়েকটি ঘটনায় চোখ রাখলে পরিষ্কার হয়ে যায়। বঙ্গবন্ধু প্রধানমন্ত্রীত্বকালেই বাবা-মাকে হারান। মোশতাক তখনো মন্ত্রী। গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় কবর দেয়া হয় বঙ্গবন্ধুর মা-বাবাকে। বঙ্গবন্ধুর বাবা মৌলভী লুৎফর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়েন মোশতাক। মোশতাক নিজে কবরে নেমে পড়েন লাশ শায়িত করতে। মোশতাক বঙ্গবন্ধুর মা সায়রা খাতুনের মৃত্যুতে তো মাটিতেই গড়াগড়ি করে কান্নায় চোখমুখ ভাসিয়ে ফেলেন। সংবাদপত্রের পাতায় তা খবর হয়ে যায়। 

 

১৯৭৫ সালের ১৫ জুলাই শেখ কামালের বিয়েতেও বিশিষ্ট ভূমিকায় ছিলেন খন্দকার মোশতাক আহমেদ। শেখ কামালের উকিল বাপের আসন অলংকৃত করেন তিনি। মোশতাক বঙ্গবন্ধুকে একটা সোনার বটগাছ উপহার দিয়ে বলেছিলেন, ‘মুজিব তুমি সত্যিকার অর্থেই বাংলার বটবৃক্ষ, আমরা হলাম ডালপালা মাত্র।’

 

১৯৭৫ সালের ১৪ আগস্ট বাসায় রান্না করা হাঁসের মাংশ নিয়ে বঙ্গবন্ধুর বাড়িতে যান মোশতাক। বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে কথপোকথনকালে শেখ রাসেলের আগমন ঘটে। মোশতাক শিশু রাসেলকে আদর করে মাথায় চুমো খান। এরপর নিজের টুপিটা খুলে রাসেলের মাথায় পরিয়ে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। মোশতাক বললেন, ‘দেখো ওকে কেমন মানিয়েছে।

সন্ধ্যার পরপরই মোশতাক তার আগামসীহ লেনের বাড়িতে চলে যান। সেই মোশতাক রাতটা দিনে গড়াতেই কী কাণ্ডটা না ঘটালেন। শুধু কী কাণ্ড? না, সেতো বিশ্বাসঘাতকতামূলক এক মহাকাণ্ড- মহা হত্যাযজ্ঞ।

পূর্বপরিকল্পনা মতো রাষ্ট্রপতি হলেন মোশতাক। নিহত বঙ্গবন্ধুর লাশটা সিঁড়িতে পড়ে আছে তখনো। বাড়িশুদ্ধ লাশ আর লাশ। সেই শুক্রবারই খুনিবেষ্টিত হয়ে বায়তুল মোকাররম মসজিদে জুম্মার নামায আদায় করলেন। তারপর খুনীদের হাতে মিষ্টিমুখ করলেন, সমবেত মুসল্লিদেরও মিষ্টিমুখ করালেন। মুসল্লিরা বিস্মিত ভীতসন্ত্রস্ত মনে দেখলো বঙ্গবন্ধুরই বাণিজ্যমন্ত্রী মোশতাক রাষ্ট্রপতি। খন্দকার মোশতাক রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর রাসেলের মাথার ওপর চাপানো তার গাঢ় ছাই রঙের কিস্তি টুপিটাকে জাতীয় টুপি হিসাবে ঘোষণা করে দিলেন।

তিনি বললেন, সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের এ টুপি পরিধান করতে হবে। সব মন্ত্রিরা সম্মতি দিলেন। যারা বঙ্গবন্ধুর মন্ত্রিসভারই সদস্য ছিলেন। সেই প্রস্তাব পাস করা হলো এই বলে যে, জাতীয় সঙ্গীত, জাতীয় ফুল, জাতীয় ফল, জাতীয় পাখির মতো একটা জাতীয় টুপিও থাকা দরকার।

মোশতাক অতিশয় ভাগ্যবান ছিলেন। জীবনে বারবার বিশ্বাসঘাতকতা করেও পার পেয়ে যান বঙ্গবন্ধুর মহানুভবতায়। বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীতেও মোশতাকের প্রতি পরম ভালবাসা প্রকাশ পেয়েছে। বঙ্গবন্ধু রাজনীতির প্রথম দিকের ভূমিকা ভুলে গিয়ে মোশতাককে বন্ধু ভেবে বুকে স্থান দিয়েছিলেন।

১৯৪৯ সালের ২৩ জুন আওয়ামী মুসলিম লীগ গঠিত হলে কারারুদ্ধ শেখ মুজিবুর রহমানের পাশাপাশি খন্দকার মোশতাক আহমেদও যুগ্ম সম্পাদক হয়েছিলেন। কিন্তু ওই বছরের ১১ অক্টোবর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াবজাদা লিয়াকত আলী খানের আগমন উপলক্ষে ‘গভর্নর হাউজ’ ঘেরাও কর্মসূচি ঘোষণা করে আওয়ামী মুসলিম লীগ। কর্মসূচি চলাকালীন গ্রেফতার হন দলের সভাপতি মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী, সাধারণ সম্পাদক শামসুল হক এবং পরে শেখ মুজিব।

ভয়ে পত্রিকায় বিবৃতি দিয়ে দল ত্যাগ করেন অন্যতম সহ-সভাপতি ঢাকা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন, আলী আমজাদ খান ও সহ-যুগ্ম সম্পাদক এ কে রফিকুল হোসেন। যুগ্ম সম্পাদক মোশতাক রাজনীতির পাট চুকিয়ে আইন ব্যবসায় শামিল হন সিনিয়র সহ-সভাপতি আতাউর রহমান খানের সঙ্গে। ৫০ সালে কারামুক্ত শেখ মুজিব আওয়ামী মুসলিম লীগের অফিস খুলে বসেন নবাবপুরে। ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসাবে শেখ মুজিব দলীয় কার্যক্রম শুরু করলেও মোশতাকের হদিস ছিল না। ফলে ‘৫৩ সালের প্রথম কাউন্সিলে নির্বাচিত কমিটিতে তার ঠাঁই হয়নি।

‘৫৪ সালের মার্চের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের মনোনয়নলাভে ব্যর্থ হন মোশতাক। শহীদ সোহরাওয়ার্দীর বিশেষ অনুকম্পায় তাকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে বিজয়ী করে আনা হয়। আওয়ামী লীগও তাকে ফিরিয়ে নেয়। আওয়ামী মুসলিম লীগ যুক্তফ্রন্ট থেকে বেরিয়ে এলেও গভর্নর শেরেবাংলার দলে গা ভাসান এবং চীফ হুইপ হন। ৫৫ সালে দল অসাম্প্রদায়িক নীতিগ্রহণ করে নাম থেকে ‘মুসলিম’ শব্দ কর্তন করলে মোশতাক আব্দুস সালাম খানের সঙ্গে হাত মেলান এবং আওয়ামী মুসলিম লীগ নামে দল টিকিয়ে রাখেন। তারা বহিষ্কারও হন। পরে মোশতাক আওয়ামী লীগে ফিরে আসেন।
১৯৭১ সালে মুজিব নগর সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোশতাক পাকিস্তানের সঙ্গে কনফেডারেশন গঠনের চক্রান্তের দায়ে অভিযুক্ত হন। হারান মন্ত্রীত্ব। আর সেই মধুর প্রতিশোধ নেন ৭৫ সালের ৩ নভেম্বর জাতীয় চারনেতাকে হত্যা করে। রাষ্ট্রপতির ভাষণে মোশতাক বঙ্গবন্ধুর খুনীদের ‘দেশের সূর্য সৈনিক’ হিসাবে অভিহিত করেন।

আওয়ামী লীগ একুশ বছর পর ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় ফিরে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা হত্যার বিচার কার্য শুরু করে। কিন্তু তার মাত্র ক’দিন আগে ৯৬ সালের ৫ মার্চ মোশতাক মারা যান। মৃত্যুর পর পুলিশ পাহারায় বায়তুল মোকাররম মসজিদ প্রাঙ্গণে মোশতাকের নামাজে জানাজা হওয়ার কথা থাকলেও বিক্ষোভের মুখে তা সম্ভব হয়নি। কুমিল্লার দাউদকান্দির দশপাড়ায় পারিবারিক কবরস্থানে মোশতাককে দাফন করা হয়।

Share Button




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রধান উপদেষ্টাঃ শাহজাদা পারভেজ টিনু।
আইন উপদেষ্টাঃ এ্যাড আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ
(জজকোর্ড ঢাকা)
সম্পাদক ও প্রকাশক: এইচ এম মোহিবুল্লাহ (মোহিব)
নির্বাহী সম্পাদকঃ মো: মোস্তাফিজুর রহমান।
ব্যবস্থাপনা পরিচালক: নূর-ই আলম আজাদ।
যুগ্ন সম্পাদকঃ আমিনুর রহমান রুবেল ও এস এম আমিনুল ইসলাম।
সাহিত্য সম্পাদকঃ খলিলুর রহমান তাং ও ইউসুফ আলী তাং।
বার্তা সম্পাদক : মো: নূর হোসেন।

অফিসঃ
ঢাকাঃ সুলতান টাওয়ার (৩য় তলা) টংঙ্গী বাজার, গাজিপুর, ঢাকা।
বরিশালঃ ১০ নং ওয়ার্ড, বাঁধ রোড,ষ্টীমার ঘাট মার্কেট (৩য় তলা)
কলাপাড়াঃ মমতা মার্কেট,বাদুড় তলী সূইজগেট,কলাপাড়া,পটুয়াখালী।
E-mail: somoynewskp@gmail.com
মোবাইলঃ 01721987722

Design & Developed by
  বাবার কাছে যেতে চাওয়ায় মায়ের হাতে মেয়ে খুন!!   ঈশ্বরগঞ্জে জমি লিখে না দেওয়ায় বৃদ্ধ পিতা-মাতার উপর সন্তানদের অমানবিক নির্যাতন।   লক্ষ্মীপুরে উদযাপন হলো দৈনিক সময়ের আলো’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী    দ্বিতীয় দিনেও রাজশাহীতে চলছে না যান, ভোগান্তিতে মানুষ।   বাংলাদেশ পুলিশের পুলিশ মেমোরিয়াল ডে-২০২১ উদযাপন   লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগে মাদ্রাসা অধ্যক্ষ সহ গ্রেফতার-২   ‘পছন্দের পাঁচটি বিকাশ’ নাম্বারে সেন্ড মানিতে’ খরচ নেই।   রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ আজ মঙ্গলবার।   বরিশালের সর্বজন শ্রদ্ধেয় শিক্ষাবিদ সরকারি ব্রজমোহন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. হানিফ আর নেই।   পান-সুপারি আনতে গিয়ে প্রাণ গেল বৃদ্ধার   লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় আগুনে ২৫ দোকানঘর পুড়ে ছাই   স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা করলেন যৌতুকের জন্য স্বামী!   ময়মনসিংহের ত্রিশালে নানা আয়োজনে দৈনিক আমাদের কণ্ঠ পত্রিকার বর্ষপুর্তি পালিত   মোংলায় একটি ঘরের মালামাল লুটে নিয়েছে দুই দুর্বৃত্তরা।   লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশের আয়োজনে “পুলিশ মেমোরিয়াল ডে-২০২১ উদযাপন   লক্ষ্মীপুরে জাতীয় বীমা দিবস-২০২১ উদযাপন   প্রাইভেট পড়ান মাত্র ২০ টাকায়! ৭৯ বছরের ফখরুল   ময়লার ভাগাড় যেন এখন সর্বনাশা পদ্মা!   বন্ধ হয়ে যাবে রাজশাহীর সঙ্গে সারাদেশের বাস চলাচল।   ভিক্ষুক দুই ফ্ল্যাটের মালিক , মাসে আয় ৭৫ হাজার টাকা!