রবিবার ৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   রবিবার ৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ব্রেকিং নিউজঃ
এই সরকার একটা অভয়দ সরকার বলে মন্তব্য করেছেন ডাঃ মাহবুবুর রহমান লিটন। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা মুখে যা বলেন তা তিনি করে দেখান'।।  বই মেলায় আসছে সাংবাদিক শিহাব আহম্মেদ এর বই ❝অসমাপ্ত সেই তুমি❞ টেকনাফে বিজিবি'র পৃথক অভিযান, ২ লক্ষাধিক ইয়াবা জব্দ। কাশিয়ানীতে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার। কাশিয়ানীতে নকল সার কারখানার সন্ধান। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সাংবাদিক কল্যাণ সংস্থার কাশিয়ান উপজেলা শাখার উদ্বোধন।  তুমব্রু সীমান্তে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে বিজিবি মহাপরিচালক। ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-২। পটুয়াখালীতে কলেজের উপ-অধ্যক্ষ নিয়োগে প্রক্রিয়ায় জটিলতা,ভুক্তভোগীর ক্ষোপ প্রকাশ। 
রাজধানীতে এক কবর দেড় কোটি টাকা!!
এস এম আওলাদ হোসেন।।
প্রকাশ: ২৫ জানুয়ারি, ২০২৩, ১২:১৫ পূর্বাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীতে এক কবর দেড় কোটি টাকা!!

নিউজ ডেস্কঃ  রাজধানী ঢাকায় প্রায় দুই কোটি মানুষের বসবাস। দুই সিটি করপোরেশনের অধীনে কবরস্থান আছে মাত্র ৯টি। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকায় তিনটি এবং উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় আছে ছয়টি। এসব কবরস্থানে নতুন করে আর জায়গা বাড়ানোর সুযোগ নেই। তাই সাধারণভাবে এসব কবরস্থানে একই কবরে অনেককে কবর দেওয়া হয়। তবে বিশেষ নিয়ম মেনে বড় অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে কবর সংরক্ষণ করা যায়। সেটি সর্বোচ্চ ২৫ বছর পর্যন্ত।

মরদেহ দাফনে জায়গার স্বল্পতার কারণে এবং কবর সংরক্ষণে নাগরিকদের নিরুৎসাহিত করতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন কবর সংরক্ষণ ফি কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে। গত ১৮ জানুয়ারি উত্তর সিটির কবরস্থানসমূহের জন্য নতুন নীতিমালা অনুমোদন করেন ডিএনসিসির সচিব ড. মোহাম্মদ মাহে আলম। এই নীতিমালায় কবরের নতুন সংরক্ষণ ফি নির্ধারণ করা হয়।

ফি বেড়েছে ৩ গুণেরও বেশি :
টাকা খরচ করেও যে কেউ ইচ্ছা করলে ঢাকায় কবর সংরক্ষণ করতে পারেন না। রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হলে বা সর্বোচ্চ পর্যায়ের কারো সুপারিশ থাকলে কেবল কবর সংরক্ষণের সুযোগ থাকে। তবে সেক্ষেত্রে মোটা অঙ্কের টাকা গুনতে হয়। অপরিকল্পিত এই শহরে নতুন জায়গা বের করে নতুন কবরস্থান করা কঠিন কাজ। তবে সিটি করপোরেশনের নতুন ওয়ার্ডগুলোতে এখনো সেভাবে স্থায়ী উন্নয়নের কাজ শুরু হয়নি। তাই সেই ওয়ার্ডগুলোতে নতুন জায়গা বের করে কবরস্থান উপযোগী জায়গাকে নির্ধারণ করা গেলে অন্তত ওইসব এলাকায় কবরস্থানের সংকট অতটা আর থাকবে না।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আওতায় থাকা ছয়টি কবরস্থানে অগ্রিম কবর সংরক্ষণ বন্ধ রয়েছে। তবে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ও স্থান প্রাপ্যতা সাপেক্ষে এসব কবরস্থানে বিভিন্ন মেয়াদে কবর সংরক্ষণের সীমিত ব্যবস্থা রয়েছে। উত্তরা ও বনানী কবরস্থানে আগে ১৫ বছরের জন্য কবর সংরক্ষণ করতে ২৪ লাখ টাকা এবং ২৫ বছরের জন্য লাগত ৪৫ লাখ টাকা। নতুন নীতিমালা অনুযায়ী, বনানী কবরস্থানে ১৫ বছরের জন্য কবর সংরক্ষণ করতে লাগবে ১ কোটি টাকা আর ২৫ বছরের জন্য গুনতে হবে দেড় কোটি টাকা।

একইভাবে উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টর কবরস্থানে ১৫ বছরের জন্য ৭৫ লাখ টাকা আর ২৫ বছরের জন্য এক কোটি টাকা, উত্তরা ১২ নম্বর সেক্টর করবস্থানে ১৫ বছরের জন্য ৫০ লাখ আর ২৫ বছরের জন্য ৭৫ লাখ টাকা, উত্তরা ১৪ নম্বর সেক্টর কবরস্থানে ১৫ বছরের জন্য ৩০ লাখ আর ২৫ বছর বছরের জন্য ৫০ লাখ টাকা সংরক্ষণ ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী করবস্থানে ১৫ বছরের জন্য ২০ লাখ এবং ২৫ বছরের জন্য ৩০ লাখ টাকা, রায়েরবাজার স্মৃতিসৌধ সংলগ্ন কবরস্থানে ১৫ বছরের জন্য ১০ লাখ এবং ২৫ বছরের জন্য ১৫ লাখ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা মকবুল হোসাইন গনমাধ্যমকে বলেন, কবর সংরক্ষণে নিরুৎসাহিত করতেই মূলত সংরক্ষণ ফি বাড়ানো হয়েছে। বিপুল সংখ্যক আবেদন আসে কবর সংরক্ষণের জন্য। এভাবে আবেদন বাড়তে থাকলে এবং কবর সংরক্ষণ করা হলে কবর দেয়ার জায়গা অনেক কমে যাবে। আশা করছি ফি বৃদ্ধির কারণে কবর সংরক্ষণের আবেদন কমবে।

কবর বিষয়ক অন্যান্য নিয়ম :

নতুন নীতিমালায় উল্লেখ করা হয়, এককালীন সর্বোচ্চ ২৫ বছরের জন্য কবর সংরক্ষণের অনুমতি দেওয়া যাবে। তবে আবেদনকারী মৃত ব্যক্তির পক্ষে কোনো বৈধ উত্তরসূরি, শুভাকাঙ্ক্ষী ১৫/২৫ বছরের অনুমোদিত সংরক্ষণ মেয়াদ অতিক্রান্ত হওয়ার পর আবার কবর সংরক্ষণে আগ্রহী হলে ইতোপূর্বে অনুমোদিত মেয়াদের মধ্যে নবায়নের জন্য আবেদন করতে হবে। তার আবেদন যথাযথ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদিত হলে (১৫/২৫ বছরের) নির্ধারিত নবায়ন ফি পরিশোধ সাপেক্ষে সংরক্ষণের মেয়াদ নবায়ন করা যাবে।

সংরক্ষিত প্রতিটি কবরের জন্য বরাদ্দকৃত জায়গার পরিমাণ ৮’-০” x ৪’-০” এর অতিরিক্ত হবে না বলে নীতিমালায় উল্লেখ করা হয়। বলা হয়, কবর পাকা করার ক্ষেত্রে বরাদ্দকৃত জায়গার বেশি জমি ব্যবহার করা যাবে না। কবরের উচ্চতা হবে ছাদবিহীন অনধিক ৩’-০”।

উত্তরা ও বনানী কবরস্থানে আগে ১৫ বছরের জন্য কবর সংরক্ষণ করতে ২৪ লাখ টাকা এবং ২৫ বছরের জন্য লাগত ৪৫ লাখ টাকা। নতুন নীতিমালা অনুযায়ী, বনানী কবরস্থানে ১৫ বছরের জন্য কবর সংরক্ষণ করতে লাগবে ১ কোটি টাকা আর ২৫ বছরের জন্য গুনতে হবে দেড় কোটি টাকা।এই নীতিমালার আওতায় সংরক্ষিত কবরের উপর পুনঃকবর দেওয়ার ক্ষেত্রে রেজিস্ট্রেশন ফিসহ বনানী কবরস্থানের জন্য ৫০ হাজার ৫০০ টাকা এবং অন্যান্য কবরস্থানসমূহের জন্য ৩০ হাজার ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

তবে সংরক্ষিত কবরের উপর দাফনকৃত ব্যক্তির পুত্র-কন্যা, স্বামী,স্ত্রী, পিতা-মাতা, সহোদর-সহোদরা ব্যতীত অন্য কাউকে পুনঃকবর দেওয়া যাবে না। পুনঃকবরের ক্ষেত্রে নির্ধারিত ফরম পূরণ পূর্বক যথাযথ কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন করতে হবে। যখনই পুনঃকবর দেওয়া হোক না কেন, যে সংরক্ষিত কবরের উপর পুনঃকবর দেওয়া হবে তার (সংরক্ষিত কবরের) পূর্বের মেয়াদ বহাল থাকবে। মেয়াদি কবরের উপর মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্বের দুই বছরের মধ্যে পুনঃকবর দেওয়া যাবে না।

কবরের জায়গার সংকটের বিষয়ে নগর পরিকল্পনাবিদ এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের অধ্যাপক ড. আদিল মুহাম্মদ খান বলেন, অপরিকল্পিত এই শহরে নতুন জায়গা বের করে নতুন কবরস্থান করা কঠিন কাজ। তবে সিটি করপোরেশনের নতুন ওয়ার্ডগুলোতে এখনো সেভাবে স্থায়ী উন্নয়নের কাজ শুরু হয়নি। তাই সেই ওয়ার্ডগুলোতে নতুন জায়গা বের করে কবরস্থান উপযোগী জায়গাকে নির্ধারণ করা গেলে অন্তত ওইসব এলাকায় কবরস্থানের সংকট অতটা আর থাকবে না। একই সঙ্গে বেসরকারি আবাসন কোম্পানিগুলোকেও যদি তাদের প্রকল্পে কবরস্থানের জন্য আলাদা জায়গা নির্ধারন করতে বাধ্য করা যায় তাহলে এই সংকটের অনেকটাই সমাধান হতে পারে।

Share Button




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

This image has an empty alt attribute; its file name is add-1-1024x672.jpg

সর্বাধিক পঠিত

  • প্রধান উপদেষ্টাঃ শাহজাদা পারভেজ টিনু।
    আইন উপদেষ্টাঃ এ্যাড আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ
    (জজকোর্ড ঢাকা)
    সম্পাদক ও প্রকাশক: এইচ এম মোহিবুল্লাহ (মোহিব)
    নির্বাহী সম্পাদকঃ মো: মোস্তাফিজুর রহমান।
    ব্যবস্থাপনা পরিচালক: নূর-ই আলম আজাদ।
    যুগ্ন সম্পাদকঃ আমিনুর রহমান রুবেল ও এস এম আমিনুল ইসলাম।
    সাহিত্য সম্পাদকঃ খলিলুর রহমান তাং ও ইউসুফ আলী তাং।
    বার্তা সম্পাদক : এস এম আওলাদ হোসেন।

অফিসঃ
ঢাকাঃ সুলতান টাওয়ার (৩য় তলা) টংঙ্গী বাজার, গাজিপুর, ঢাকা।
বরিশালঃ ৩৪৫ সিটি প্লাজা ৩য় তলা ,ফজলুল হক এভিনিউ বরিশাল।
কলাপাড়াঃ মমতা মার্কেট,বাদুড় তলী সূইজগেট,কলাপাড়া,পটুয়াখালী।
E-mail: somoynewskp@gmail.com
মোবাইলঃ 01721987722

Design & Developed by
  এই সরকার একটা অভয়দ সরকার বলে মন্তব্য করেছেন ডাঃ মাহবুবুর রহমান লিটন।   বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা মুখে যা বলেন তা তিনি করে দেখান’।।    বই মেলায় আসছে সাংবাদিক শিহাব আহম্মেদ এর বই ❝অসমাপ্ত সেই তুমি❞   টেকনাফে বিজিবি’র পৃথক অভিযান, ২ লক্ষাধিক ইয়াবা জব্দ।   কাশিয়ানীতে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার।   কাশিয়ানীতে নকল সার কারখানার সন্ধান।   আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সাংবাদিক কল্যাণ সংস্থার কাশিয়ান উপজেলা শাখার উদ্বোধন।    তুমব্রু সীমান্তে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে বিজিবি মহাপরিচালক।   ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-২।   পটুয়াখালীতে কলেজের উপ-অধ্যক্ষ নিয়োগে প্রক্রিয়ায় জটিলতা,ভুক্তভোগীর ক্ষোপ প্রকাশ।    পায়রা বন্দরে পায়রা প্রিপারেটি স্কুলের উদ্বোধন।   ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে লাঙ্গল বিজয়ী।   ঢাবির ৪ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী ও ১০৯ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার।   জমজমের পানির নামে কী বিক্রি হচ্ছে বায়তুল মোকাররমে।   চকরিয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কে সিংহ রাসেলের মৃ,ত্যু, চিকিৎসাধীন টুম্পা।   কক্সবাজারে হত্যা মামলার আসামি গ্রেফতার।   স্থানীয় জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থান তৈরি করছে সরকারের ইজিপিপি প্রকল্প- দুর্যোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক   হত্যা মামলায় বাবা মা ও ছেলের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।   ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন নগর ভবন নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন।   নব গোপালগঞ্জ জেলায় যোগদানকৃত জেলা প্রশাসকের সঙ্গে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত।