বৃহস্পতিবার ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   বৃহস্পতিবার ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ব্রেকিং নিউজঃ
টেকনাফে মাদকের চালান নিয়ে শিশুসহ রোহিঙ্গা নারী আটক দোহাজারী-ঘুমধুম রেল প্রকল্প পরিদর্শনে রেলমন্ত্রী প্রেমিকাকে চুরি করে ফোন দেওয়ায় জেনে গেল পরিবার । অতঃপর আত্মহত্যা ভোলার রাজাপুরে ৩১ হাজার টাকাসহ ছয় জুয়ারি আটক উখিয়ায় র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত লক্ষ্মীপুরে সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা টিপু-বাবর সহ আহত ১৩, সড়কে যানজটে জনদুর্ভোগ। ভোলার তজুমুদ্দিনে ১৮০পিছ ইয়াবা'সহ দুই মাদক ব্যাবসায়ী আটক। ফকিরহাটে ইউপি নির্বাচনে সকল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর জয় কলাপাড়ায় নৌ পুলিশের পিটুনিতে জেলের মৃত্যু..... ৫ পুলিশ অবরুদ্ধ ।। উখিয়ায় দেশীয় অবৈধ অস্ত্রসহ রোহিঙ্গা আটক
খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলায় ২নং তবলছড়িতে বরাদ্ধকৃত দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।
বিশেষ প্রতিবেদক: খাগড়াছড়ি
প্রকাশ: ৩১ জুলাই, ২০২১, ২:৩৪ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলায় ২নং তবলছড়িতে বরাদ্ধকৃত দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

সময় নিউজ বিডিঃ : খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গায় উপজেলা ২নং তবলছড়িতে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে বরাদ্ধকৃত দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। নির্মাণকাজ চলাকালীন সময়ে পিআইও এর মনোনীত মিস্ত্রি ছাড়া কোন দায়িত্বশীল সরকারি কর্মকর্তা বা জনপ্রতিনিধি সরেজমিনে পরিদর্শনে যাননি অভিযোগ সুবিধাভোগীর। প্রতিটি ইউনিয়নে নির্মাণ কাজের জন্য নির্ধারিত তদারকি কর্মকর্তা থাকলেও সরেজমিনে সুবিধাভোগীরা তাদের উপস্থিতি দেখতে পাননি বলে জানান তারা।

 

সরেজমিনে গেলে সুবিধাভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শী সৈয়দ আলী এবং তার ছেলে মো: আবদুল মান্নান বলেন– প্রকল্প বাস্তবায়নের অর্থবছর শেষ হয়ে দু বছর পার হলেও পুর্ণাঙ্গ নির্মাণকৃত ঘর এখনো বুঝে পায়নি বলে জানান। এরই মধ্যে নির্মানাধীন ভবনের বিভিন্ন অংশে দেখা দিয়েছে ফাটল, বেড়েছে ভেঙ্গে পড়ার ঝুঁকি। তারা জানান, নির্মাণের কাঁচামাল সিমেন্ট ও বালির মিশ্রণে মানা হয়নি সরকারি নির্দেশনা। টিনের ছাউনিতে ব্যবহার করা হয়েছে নিম্নমানের কাঠ। জানালায় দেয়নি গ্রীল, দরজার ফ্রেম উইপোকায় খেয়ে ফোকলা করে ফেলেছে। টয়লেট ও রান্নাঘর অর্ধনির্মান অবস্থায় পড়ে আছে। এছাড়াও ২নং তবলছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল কাদের এর নির্দেশে নির্মাণ কাজের মালামাল পরিবহন খরচ, ঘরে ব্যবহৃত কাঠ ক্রয়, দরজা জানালার কবজা, সিটকারি, পেরাগ ও শ্রমিকের খাবার খরচ সহ প্রায় ৪০ হাজার টাকা দিতে হয়েছে বলে জানান সৈয়দ আলী।
তবলছড়ি ২নং ওয়ার্ডের শুকনাছড়ি ইসলামপুর এলাকার সুবিধাভোগী কমলা বেগম জানান, চেয়ারম্যান আবদুল কাদের আশ্রয়ণ প্রকল্পের ক শ্রেণির ঘর দেয়ার কথা বলে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: তাজুল ইসলাম এর মাধ্যমে ২৫ হাজার টাকা নিয়েছেন। তার নামে বরাদ্ধকৃত নির্মানাধীন ঘরে লাগানো লোহার জানালার পাল্লা, ঘর বুুঝিয়ে দেয়ার আগেই ভেঙ্গে গেছে। পিছনের দরজা দেয়া হয়নি এবং সামনের দরজার অবস্থা এখনি নড়বড়ে। বরাদ্ধের চেয়েও কম পরিমাণ সিমেন্ট ব্যবহার করা হয়েছে। শ্রমিকদের খাবার খরচ বাবদে আরো খরচ করতে হয়েছে প্রায় ২৫ হাজার টাকা।

অন্যদিকে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বরাদ্ধকৃত প্রথম দফার ঘরগুলোর মধ্যে ২নং তবলছড়ি ইউনিয়নের সরকার পাড়া এলাকার শাহজালাল হোসেন (বাবু) এর নামীয় ঘরটি অর্ধনির্মিত অবস্থায় রয়েছে। সরেজমিনে গেলে তিনি জানান, নির্মাণের পরপরই বারান্দার পিলার ভেঙ্গে পড়ে গেছে। চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি কোন ব্যবস্থা নেননি। জানালার গ্রীল, টয়লেটের টাংকি, রান্না ঘরের দেয়াল, পিছনের প্যাসেজ ও ফ্লোর, ২ ফুট উচু ভিটেও করা হয়নি। নিজের টাকা ব্যয় করে কিনতে হয়েছে টিনের ছাউনিতে ব্যবহৃত কাঠ সহ বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী। শ্রমিকদের খাবারের খরচ সহ শাহজালাল হোসেন (বাবু)র খরচ হয়েছে প্রায় ৩৫ হাজার টাকা। যা সেই কৌশলী মহাজন প্রথার মতো শ্রম ও ঘামে অর্জিত দরিদ্রের টাকা কেড়ে নেয়ার ঘটনা।

এছাড়াও একই ইউনিয়নে টিআর কর্মসূচির আওতায় দূর্যোগ সহনীয় বাসগৃহের সুবিধাভোগী গৌরাঙ্গ পাড়া এলাকার মনমোহনী শীল জানান, আমার ঘরের কাজ অর্ধনির্মাণ অবস্থায় পড়ে ছিল প্রায় ছয় মাসেরও অধিক সময়। পরে উপায়ন্ত না পেয়ে নিজের নামে ঋন নিয়ে টয়লেট, রান্নাঘর, জানালার গ্রীল, ঘরে ব্যবহৃত কাঠ, পিছনের প্যাসেজ লম্বা ৮ ফুট পার্শে ৬ ফুট ভিটে পাকাকরণ, সামনের বারান্দা, রং করণ, ফ্লোর পাকাকরণ, মুল ভবনের ২ফুট উচু পাকা ভিটা নির্মান কাজ করতে হয়েছে সুবিধাভোগী এই ব্যক্তিনীকে। এতে মনমোহনী শীল এর খরচ হয়েছে প্রায় (৮৩,৫০০) তিরাশি হাজার পাঁচশত টাকা। যা ছিল দরিদ্র এই ব্যক্তিনীর পক্ষে অত্যান্ত কষ্টসাধ্য ।

একই ওয়ার্ডের সুবিধাভোগী মোঃ আবু তাহের বলেন, তার নামে বরাদ্দকৃত ঘরের কাজ এখনো শেষ হয়নি। ঘর নির্মানে ব্যবহার করা হয়েছে নিম্নমানের ইট, সিমেন্ট ও বালু। নেই জানালার গ্রীল, রান্নাঘর, টয়লেট ও টাংকি। নিজের অর্থ ব্যয় করে ঘর নির্মানের জন্য তীর, পাইর, দরজা জানালার সিটকারী, ঘরে ব্যবহৃত কাঠ কিনতে হয়েছে তাকে। প্রতিদিন নিজের তহবিল থেকে ১ জন নির্মাণ শ্রমিকের বেতন ৫০০ টাকা চালাতে নির্দেশ দেন চেয়ারম্যানের নিয়োগকৃত মিস্ত্রি আমির হোসেন। এতে সুবিধাভোগী আবু তাহের এর খরচ করতে হয়েছে ৩৯ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে ২৯ জুলাই ২নং তবলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাদেরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দূর্যোগ সহনীয় বাসগৃহের যে ঘর বরাদ্ধ হয়েছিল সেগুলোর কাজ প্রথমে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) রাজ কুমার শীল, নির্মাণ সামগ্রী চট্টগ্রাম থেকে এনেছেন এবং তার পছন্দের নিয়োগকৃত মিস্ত্রি জনৈক আমির হোসেন এর মাধ্যমে নির্মাণ কাজ শুরু করেন। পরবর্তীতে পিআইও কাজের অর্ধেক সম্পাদন করা অবস্থায় আমাকে দায়িত্বভার দেন। প্রথমে আমি এই দায়িত্ব নিতে না চাইলে, ভবিষ্যতে ২নং তবলছড়ি ইউনিয়নে কোন ঘর দেয়া হবে না শর্ত দিলে আমি অবশিষ্ট নির্মানকাজ সম্পাদন করে দিতে রাজি হই এবং বাকী কাজ সম্পন্ন করি। বিল যদিও আমার স্বাক্ষরে হয়েছে কিন্তু টাকা উত্তোলন হয়েছে পিআইও রাজকুমার শীল এর পরিকল্পনায়। বিল করার পুর্বে আমার কাছ থেকে তিনি অগ্রিম চেক নিয়েছেন পরে সরকারি কাজের বিপরীতে দেয়া বিল তিনি আমার চেক দিয়ে তুলেছেন। বিভিন্ন সুবিধাভোগীর কাছ থেকে টাকা নেয়ার বিষয়টি তিনি উড়িয়ে দিয়ে বলেন ২নং তবলছড়ি ইউনিয়ন এলাকায় কতগুলো ঘর নির্মানের কাজ হয়েছে তার সংখ্যা তিনি নিজেও জানেন না ।

বিষয়টি সম্পর্কে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রাজকুমার শীল বলেন, ২০১৮-১৯ অর্থবছরের নির্মাণকৃত দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহগুলো বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে । সুবিধাভোগীদের কাছ থেকে টাকা নেয়ার বিষয়টি জানেন না দাবী করে তিনি বলেন যদি এমন কোনো ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে সংশ্লিষ্ট এলাকায় অর্থ লেনদেনের সাথে জড়িতরাই দ্বায়ভার গ্রহন করবেন। পিআইও হয়ে নিজেই ঠিকাদারী করতে পারেন কিনা ? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি কোন কাজ করাইনি, আমি তো ঠিকাদার নই। মাটিরাঙ্গার সকল ঘর নির্মাণ কাজই সংশ্লিষ্ট এলাকার ইউপি চেয়ারম্যানরাই সম্পাদন করেছেন।এদিকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ঘর নির্মাণ কাজে কোন রকম অনিয়ম হলে কোন রকম ছাড় দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন।

Share Button




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রধান উপদেষ্টাঃ শাহজাদা পারভেজ টিনু।
আইন উপদেষ্টাঃ এ্যাড আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ
(জজকোর্ড ঢাকা)
সম্পাদক ও প্রকাশক: এইচ এম মোহিবুল্লাহ (মোহিব)
নির্বাহী সম্পাদকঃ মো: মোস্তাফিজুর রহমান।
ব্যবস্থাপনা পরিচালক: নূর-ই আলম আজাদ।
যুগ্ন সম্পাদকঃ আমিনুর রহমান রুবেল ও এস এম আমিনুল ইসলাম।
সাহিত্য সম্পাদকঃ খলিলুর রহমান তাং ও ইউসুফ আলী তাং।
বার্তা সম্পাদক : মো: নূর হোসেন।

অফিসঃ
ঢাকাঃ সুলতান টাওয়ার (৩য় তলা) টংঙ্গী বাজার, গাজিপুর, ঢাকা।
বরিশালঃ ৩৪৫ সিটি প্লাজা ৩য় তলা ,ফজলুল হক এভিনিউ বরিশাল।
কলাপাড়াঃ মমতা মার্কেট,বাদুড় তলী সূইজগেট,কলাপাড়া,পটুয়াখালী।
E-mail: somoynewskp@gmail.com
মোবাইলঃ 01721987722

Design & Developed by
  টেকনাফে মাদকের চালান নিয়ে শিশুসহ রোহিঙ্গা নারী আটক   দোহাজারী-ঘুমধুম রেল প্রকল্প পরিদর্শনে রেলমন্ত্রী   প্রেমিকাকে চুরি করে ফোন দেওয়ায় জেনে গেল পরিবার । অতঃপর আত্মহত্যা   ভোলার রাজাপুরে ৩১ হাজার টাকাসহ ছয় জুয়ারি আটক   উখিয়ায় র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত   লক্ষ্মীপুরে সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা টিপু-বাবর সহ আহত ১৩, সড়কে যানজটে জনদুর্ভোগ।   ভোলার তজুমুদ্দিনে ১৮০পিছ ইয়াবা’সহ দুই মাদক ব্যাবসায়ী আটক।   ফকিরহাটে ইউপি নির্বাচনে সকল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর জয়   কলাপাড়ায় নৌ পুলিশের পিটুনিতে জেলের মৃত্যু….. ৫ পুলিশ অবরুদ্ধ ।।   উখিয়ায় দেশীয় অবৈধ অস্ত্রসহ রোহিঙ্গা আটক   জেলেদের আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি দিয়ে সহায়তা করবে সরকার–মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী।   ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধকে জানি’-ডকুমেন্টারি নির্মাণে ভোলা জেলায় ১ম হয়েছে লালমোহন হা-মীম স্কুল   দৌলতখানে যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগ, স্মৃতিশক্তি হারাতে বসেছেন গৃহবধূ   মহেশখালী কুতুবজোমে ইউপি নির্বাচনে একজন নিহত   উখিয়ায় ৪ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা মূল্যের ইয়াবাসহ আটক -১   লক্ষ্মীপুরে ঘরে আগুন দিয়ে চার সন্তানসহ মায়ের বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা   উখিয়ায় বালিভর্তি ডাম্পার আটক   রোহিঙ্গা ক্যাম্পের চোরাই মালের জমজমাট ব্যবসা   ভোলায় ৫০০ পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক-২   আন্তর্জাতিক উপকূল পরিচ্ছন্নতা দিবস উপলক্ষে: কুয়াকাটায় সৈকতে পারিস্কার পরিচ্ছন্নতা ও ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা।