সোমবার ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   সোমবার ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

লিবিয়ায় বন্দী চট্টগ্রামের আনোয়ারার চার যুবক : লিবিয়ায় পাঠানোর পর বিক্রি, ৪০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি
সাইদুল ইসলাম ইমু
প্রকাশ: ২৮ মার্চ, ২০২৪, ১১:৪৭ পূর্বাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

লিবিয়ায় বন্দী চট্টগ্রামের আনোয়ারার চার যুবক : লিবিয়ায় পাঠানোর পর বিক্রি, ৪০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

নিউজ ডেস্ক: মেডিকেল ভিসায় চাকরি দেওয়ার কথা বলে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ৪ যুবককে লিবিয়ায় পাঠিয়েছিল স্থানীয় একজন। পরে তাদের মিসরের একটি দালাল চক্রের কাছে বিক্রি করে দেওয়া হয়। এখন ৪০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে ওই যুবকদের স্বজনের কাছে পাঠানো হচ্ছে তাদের নির্যাতনের ভিডিও।

এ অভিযোগে বুধবার চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইশতিয়াক ইমনের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন স্বজনরা।

ওই যুবকরা হলেন– রায়পুর ইউনিয়নের গহিরা গ্রামের নুরুল আলমের ছেলে মোহাম্মদ ওয়াসিম (২২), মোজাহের মিয়ার ছেলে বোরহান উদ্দিন (১৮), আব্দুর রহিমের ছেলে জাবেদুর রহিম ঝিনুক (১৯) ও জেবল হোসেনের ছেলে নাঈম উদ্দিন (১৮)। তারা সবাই একই এলাকার বাসিন্দা।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, রায়পুর ইউনিয়নের মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে জহিরুল ইসলাম ওই যুবকদের লিবিয়ায় পাঠাতে ১৮ লাখ টাকা নিয়েছিলেন। গত মাসের ১৯ তারিখ তারা দেশ ছাড়ে। দুবাই ও মিসর হয়ে ১৫ দিন পর তারা লিবিয়ায় পৌঁছান। সেখানে জয়পুরহাটের আক্কেলপুর থানার মিজানুর রহমানের তত্ত্বাবধানে ছিলেন তারা। কিছুদিন পর মিজান তাদের মেডিকেল ভিসায় চাকরি দেওয়ার কথা বলে নিয়ে গিয়ে মিসরের একটি দালাল চক্রের কাছে বিক্রি করে দেন। তাদের পাসপোর্ট ও ভিসাও ছিনিয়ে নেন। এর পর ওই যুবকদের হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করে সেই ভিডিও স্বজনের মোবাইল ফোনে পাঠিয়ে জনপ্রতি ১০ লাখ টাকা করে মুক্তিপণ চাচ্ছে চক্রটি।

বোরহান উদ্দিনের বড় ভাই শাহাবুদ্দিন বলেন, প্রতিদিন নির্যাতনের ভিডিও ফুটেজ পাঠাচ্ছে। বুধবার ৩টার মধ্যে প্রতিজনের জন্য ১ লাখ টাকা করে পাঠাতে বলেছে। বাকি টাকা কয়েক দিনের মধ্যে পাঠাতে হবে। না হলে একজন একজন করে হত্যা করবে বলেছে। আমরা খুবই অসহায়, এত টাকা কীভাবে জোগাড় করব!

জাবেদুর রহিমের বাবা আব্দুর রহিম বলেন, জহিরুলকে ধারদেনা ও স্বর্ণালঙ্কার বিক্রি করে সাড়ে ৪ লাখ টাকা দিয়ে লিবিয়ায় পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু সেখানে ছেলে এত বড় বিপদে পড়বে কল্পনাও করিনি। এখন প্রতিদিন মুক্তিপণের জন্য নির্যাতন করছে। তাদের উদ্ধারে সরকার ও প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি।

আনোয়ারার ইউএনও ইশতিয়াক ইমন বলেন, রায়পুর ইউনিয়নের চার যুবককে লিবিয়ায় অপহরণের ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে

Share Button




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

This image has an empty alt attribute; its file name is add-1-1024x672.jpg

সর্বাধিক পঠিত

  • প্রধান উপদেষ্টাঃ শাহজাদা পারভেজ টিনু।
    আইন উপদেষ্টাঃ এ্যাড আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ
    (জজকোর্ড ঢাকা)
    সম্পাদক ও প্রকাশক: এইচ এম মোহিবুল্লাহ (মোহিব)
    নির্বাহী সম্পাদকঃ মো: মোস্তাফিজুর রহমান।
    ব্যবস্থাপনা পরিচালক: নূর-ই আলম আজাদ।
    যুগ্ন সম্পাদকঃ আমিনুর রহমান রুবেল ও এস এম আমিনুল ইসলাম।
    সাহিত্য সম্পাদকঃ খলিলুর রহমান তাং ও ইউসুফ আলী তাং।
    বার্তা সম্পাদক : এস এম আওলাদ হোসেন।

অফিসঃ
ঢাকাঃ সুলতান টাওয়ার (৩য় তলা) টংঙ্গী বাজার, গাজিপুর, ঢাকা।
বরিশালঃ ৩৪৫ সিটি প্লাজা ৩য় তলা ,ফজলুল হক এভিনিউ বরিশাল।
কলাপাড়াঃ মমতা মার্কেট,বাদুড় তলী সূইজগেট,কলাপাড়া,পটুয়াখালী।
E-mail: somoynewskp@gmail.com
মোবাইলঃ 01721987722

Design & Developed by
  ঈদ উদযাপনে নাগরিকদের যে পরামর্শ দিলো পুলিশ   ঈদ ঘিরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ১৩ কি.মি জুড়ে দীর্ঘ যানজট   কাভার্ডভ্যানের পেছনে ট্রাকের ধাক্কা, সড়কেই ঝরল ২ প্রাণ   কলাপাড়ায় শিক্ষকদের ০৫ দিনের অকুপেশনাল স্কিল কোর্স সম্পন্ন।।   কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এসেছে ১০ ফুট লম্বা মৃত্যু ডলফিন।   কলাপাড়ায় ডোবায় ভেসে আসলো জীবিত ডলফিন   লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগ নেতা সজীব হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারের দাবীতে বিক্ষোভ   ঈদে বাল্কহেড চলাচল বন্ধ থাকবে ১১ দিন   ‘ঈদযাত্রায় মহাসড়কে ফিটনেসবিহীন যান চালালেই ব্যবস্থা’   টাঙ্গাইলে পিকআপভ্যান-মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২   রাজধানীর ২০ হাটে আজ থেকে শুরু কোরবানির পশু বিক্রি   পটুয়াখালীতে অটোরিকশায় ওড়না পেচিয়ে এইচ এসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু।    ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা সফল করতে মৎস্যজীবিদের  সচেতনতায় কোষ্টগার্ডের   প্রচারাভিযান।।   কলাপাড়ায় ব্রীজের দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ।।   মহিপুরে আবাসিক হোটেল থেকে সাবেক বন কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার।।   গোয়েন্দা নজরদারিতে টিকিট কালোবাজারিরা: র‍্যাব   রোহিঙ্গাদের তৃতীয় দেশে পাঠানো সমাধান নয়: মার্কিন কর্মকর্তা ম্যাকেঞ্জি   আবারও মর্টারশেলের শব্দে কাঁপছে টেকনাফ সীমান্ত   সাবেক স্ত্রীকে নিয়ে হোটেলে পুলিশ সদস্য, বিশেষ অঙ্গে ব্লেডের আঘাত!   সিএনজি স্ট্যান্ডে চাঁদাবাজি, লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কারাগারে